বাস লোকাল হলেও ভাড়া ‘সিটিং সার্ভিসের’

 প্রকাশ: ১৫ নভেম্বর ২০২১, ০৯:৪৫ অপরাহ্ন   |   জনদুর্ভোগ


 সম্প্রতি জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার কারণে রাজধানীতে সিটিং ও গেটলক সার্ভিস নামের বাসে আগের ভাড়ার সঙ্গে সরকারের ধার্য করা বাড়তি ভাড়া যুক্ত করা হয়। এ অবস্থায় রোববার (১৪ নভেম্বর) থেকে গেটলক ও সিটিং সার্ভিস তুলে দেওয়া হলেও ভাড়া ঠিকই আগের সিটিং সার্ভিসের নিয়মে নেওয়া হচ্ছে।


সোমবার (১৫ নভেম্বর) দুপুরে কুড়িল বিশ্বরোড থেকে গুলিস্তানগামী ভিক্টোর পরিবহনের ভাড়া আদায় নিয়ে কন্ডাক্টরের সঙ্গে যাত্রীদের এ নিয়ে তুমুল তর্কাতর্কি হয়।

এ অবস্থায় বাসে দাঁড় করে যাত্রী নেওয়ার কারণে এক যাত্রী প্রতিবাদ করলে, কন্ডাক্টর আজিম উদ্দিন ওই যাত্রীর উদ্দেশে বলেন, ‘আপনারা জানেন না এখন কোন গেটলক ও সিটিং সার্ভিস নেই, সব বাসই লোকাল’।

কন্ডাক্টরের এমন মন্তব্যর প্রেক্ষিতে যাত্রীরা উচ্চস্বরে বলতে থাকেন, তাহলে করোনার আগে যে সিটিং ভাড়া ছিল তার সঙ্গে তেলের দাম বাড়ার কারণে বাড়তি ভাড়া যুক্ত করে ভাড়া নিচ্ছো কেন?

এর উত্তরে কন্ডাক্টর আজিম উদ্দিন বলেন, মালিক পক্ষ থেকে ধার্য করা ভাড়া নেওয়া হচ্ছে। একটা টাকাও বেশি নিচ্ছি না।

একজন যাত্রী জানান, করোনার কিছু আগে হঠাৎ যাত্রীবাহী বাসগুলো সিটিং সার্ভিস বলে ভাড়া বাড়িয়ে দিয়েছিল। রামপুরা থেকে গুলিস্তান ভিক্টর ও আকাশ পরিবহনের ভাড়া ছিল ১৫টাকা। সেটা করোনার কয়েক দিন আগে সিটিং সার্ভিসের কথা বলে ৫ টাকা বাড়িয়ে মোট ২০ টাকা নেওয়া হতো।

তিনি আরও জানান, তার মানে দাঁড়ালো, গেটলক-সিটিং সার্ভিস বন্ধ হলেও ভাড়া ঠিকই বেশি নেওয়া হচ্ছে। আগের সিটিং ভাড়ার সঙ্গে তেলের দাম বাড়ার কারণে সরকারের নির্ধারিত ভাড়া যুক্ত করা হয়েছে।

জনদুর্ভোগ এর আরও খবর: