প্রকাশিত হলো শ্যামসুন্দর সিকদারের বই "বঙ্গবন্ধু ও আগরতলা মামলা: ইতিহাসের নতুন গতিপথ"

 প্রকাশ: ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৩৯ অপরাহ্ন   |   সাহিত্য-সংস্কৃতি


মাতৃভাষা প্রকাশ থেকে প্রকাশিত হলো বিটিআরসির চেয়ারম্যান কবি শ্যামসুন্দর সিকদারের বই "বঙ্গবন্ধু ও আগরতলা মামলা: ইতিহাসের নতুন গতিপথ।" শ্যামসুন্দর সিকদার মূলত কবি হলেও গল্প, উপন্যাস, প্রবন্ধ এবং গবেষণাধর্মী লেখায় সমান পারঙ্গমতার স্বাক্ষর রেখেছেন। সাহিত্যচর্চায় তাঁর নিজেকে নিজে ছাড়িয়ে যাওয়ার প্রচেষ্টা নিরলস এবং অবিরাম।
তাঁর লেখালেখির বিষয়বস্তু বিচিত্র হলেও মানসপটে, চিন্তাচেতনায় বিশাল অংশ জুড়ে রয়েছে স্বদেশপ্রেম ও দেশমাতৃকার উন্নয়ন ভাবনা। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক গুরুত্বপূর্ণ সকল অর্জনের পথে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দর্শন কীভাবে শক্তিশালী নিয়ামক হিসেবে ভূমিকা রাখতে পারে, তার একটি যৌক্তিক বিশ্লেষণ শ্যাম সুন্দর সিকদারের লেখায় প্রবলভাবে উপস্থিত।
বাঙালির জাতীয় ইতিহাসে সবচেয়ে গৌরবময় ঘটনা হচ্ছে তার স্বাধিকার আন্দোলন এবং সে আন্দোলনের চূড়ান্ত পরিণতি হিসেবে ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা অর্জন। ২৩ বছরের এ আন্দোলনের নানা চড়াই-উৎরাই, ইতিহাসের প্রতিটি বাঁকবদল শ্যামসুন্দর সিকদার দেখেছেন কবির সর্বদৃষ্টি দিয়ে। বঙ্গবন্ধু ও আগরতলা মামলা: ইতিহাসের নতুন গতিপথ গ্রন্থে তিনি ঐতিহাসিক ঐ মামলার বিচার প্রক্রিয়া এবং বঙ্গবন্ধুর বুদ্ধিদীপ্ত যুগান্তকারী ভূমিকায় কীভাবে তিনি নিজেকে এবং বাঙালি জাতিকে রক্ষা করে চূড়ান্ত বিজয়ের পথে পরিচালিত করেছেন, তার একটি বস্তুনিষ্ঠ মূল্যায়ন সম্পূর্ণ নতুন ও ভিন্ন আঙ্গিকে উপস্থাপনের প্রয়াস পেয়েছেন। ফলে আগরতলা মামলার ওপর অসংখ্য গ্রন্থ লেখা হলেও শ্যামসুন্দর সিকদারের এ গ্রন্থে সর্বস্তরের পাঠক, বিশেষ করে ইতিহাস এবং রাজনীতির অনুসন্ধিৎসু পাঠক ঐতিহাসিক এ ঘটনা সম্পর্কে নতুন ধারনা লাভ করবে।
আমরা বিশ্বাস করি, গ্রন্থটি লেখকের অন্য সকল গ্রন্থের ন্যায় পাঠকপ্রিয়তা পাবে এবং একটি গুরুত্বপূর্ণ রেফারেন্স গ্রন্থ হিসেবে পাঠক-লেখক-গবেষক এটিকে গ্রহণ করবে বলে অভিজ্ঞজনদের ধারনাা।