টেস্ট থেকে অবসরের কথা ভাবছেন সাকিব!

 প্রকাশ: ২৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৫২ পূর্বাহ্ন   |   খেলাধুলা



টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর থেকে ফর্ম খরায় ভূগছে বাংলাদেশ দল। দলের এমন বাজে পরিস্থিতিতে অবশ্য ব্যাট ও বল হাতে উজ্জ্বল ছিলেন সাকিব আল হাসান। বিশ্বকাপের পাশাপাশি পাকিস্তান সিরিজেও ভালো ফর্মে ছিলেন তিনি। এবার গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা বলে দিলেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। টেস্ট ক্রিকেটে হয়তো দেখা যাবে না আর তাকে।
ক্রিকেট বিশ্বজুড়ে ইতোমধ্যে অনেকেই জৈবসুরক্ষা বলয়ে থাকার ব্যাপারে নানা মন্তব্য করেছেন। কারো মন্তব্যই এ বিষয়ে ইতিবাচক নয়। ক্রিকেটাররা কোয়ারেন্টিনে থাকতে থাকতে হাপিয়ে পড়ে। একদিকে টানা সিডিউল, অপরদিকে জৈবসুরক্ষা বলয়। শেষ পর্যন্ত যে কোনো একটি ফরম্যাট ছেড়ে দিতে হয়। সাকিও ঠিক তিন ফরম্যাটেই খেলে আসছেন। কিন্ত এখন বিষয়টা ভিন্নদিকে মোড় নিচ্ছে। কোয়ারেন্টিনের এই ঝামেলার কারণে টেস্ট ক্রিকেট থেকে বিরতির কথা ভাবছেন তিনি। যদিও বিসিবি সভাপতির সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নিবেন বলে জানান এই অলরাউন্ডার।

সাকিব বলেন, ‘আমার কাছে কোনটা গুরুত্বপূর্ণ সেটা আমি জানি, কোন জিনিসকে অগ্রাধিকার দিতে হবে সেটাও আমি জানি। আসলে এমন একটা সময় এসেছে, আমি টেস্ট থেকে বিরতি নেওয়ার চিন্তা করছি। এটাই হচ্ছে মূল কথা যে, আমি আদৌ টেস্ট খেলব কি না। খেললেও কীভাবে খেলব। ’

শুধু টেস্ট নয় বরং ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর সংক্ষিপ্ত এই ফরম্যাট ছাড়ারও কথা জানান সাকিব। তবে তা এখনও নিশ্চিত নয়। দেশসেরা এই অলরাউন্ডার বলেন,  ‘এমনও হতে পারে—২০২২-এর বিশ্বকাপের পর আমি যদি আর টি-টোয়েন্ট না খেলি, তখন আবার ওয়ানডে ও টেস্ট খেললাম। একসঙ্গে তিন ফরম্যাটে খেলা প্রায় অসম্ভব আমার জন্য। কারণ, আপনি যদি ৪০-৪২ দিনে দুটি টেস্ট খেলেন, এটা কোনোভাবেই ফ্রুটফুল নয়। স্বাভাবিকভাবে, আমাকে সিলেকটিভ ম্যাচ খেলতে হবে। এগুলো নিয়ে বিসিবির সঙ্গে বসে একটা পরিকল্পনা করা জরুরি। সেভাবেই সামনে এগোনো বুদ্ধিমানের কাজ হবে। জানুয়ারির ভেতরে পরিকল্পনাগুলো করলে ভালো হবে। ’  

হঠাৎ করেই সাকিবের এমন বক্তব্য নিয়ে তোলপাড় দেশের ক্রিকেটাঙ্গন। এত হতাশা বিশ্বসেরা অলরাউন্ডের কণ্ঠে, বিষয়টি মানতে পারেননি অনেকেই। তবে এর পেছনে রয়েছে কোয়ারেন্টাইন বাধাঁ। বিষয়টি উল্লেখ করে সাকিব বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয়, জেলখানায় যদি আপনাকে দিয়ে দেওয়া হয়, যেমন জীবন থাকবে, ঠিক তেমনই। জেলখানায়ও মানুষ কারও সঙ্গে কথা বলতে পারে। তবে, এমন নয় (যে), খেলোয়াড়েরা অনেক ঘোরাঘুরি করেন। যখন আপনি জানবেন, চাইলেই বের হতে পারবেন না, প্রবলেম সেখানে। ’

নিউজিল্যান্ড সফর থেকে ছুটি নিয়ে বর্তমানে পরিবারের সঙ্গে যুক্তরাস্ট্রে আছেন সাকিব। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) খেলতে আবার জানুয়ারিতে দেশে পাড়ি জমাবেন এই অলরাউন্ডার।